সাংবাদিকদের ওপর হামলা করলেন বি এন পি নেতাকরর্মীরা

  • অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১১:০৯:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ মার্চ ২০২৩
  • ১৬৬৬ বার পড়া হয়েছে

শুক্রবার (৩১মার্চ)পল্লবী ও রূপনগর থানার বিএনপির উদ্যোগে রাজধানীর মিরপুর ২ নম্বর ওয়ার্ড কমিউনিটি সেন্টারে এক ইফতার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।দায়িত্বরত কয়েকজন সাংবাদিকদের উপর এ সময় স্থানীয় নেতাকর্মীরা হামলা চালায়। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঘটনার পর সাংবাদিকদের কাছে দুঃখপ্রকাশ করেন এবংনেতাকর্মীদের ওপর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখান তিনি। ওই ইফতার অনুষ্ঠানে স্কাইপে লন্ডন থেকে বক্তব্য রাখেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

পল্লবী থানা আয়োজিত ইফতার অনুষ্ঠানে ব্যাপক নেতা-কর্মীর সমাগমের মধ্যেও সাংবাদিকদের দাঁড়ানোর জায়গা ছিল। দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় কয়েকজন নেতাকর্মী তাদের সঙ্গে বাড়বিতণ্ডায় জড়ায়। পরক্ষণে মারমুখী হয়ে হামলা চালায়। এতে কয়েকজন সাংবাদিক আহত হন। এ সময় মঞ্চ থেকে কেন্দ্রীয় নেতারা এসে পরিস্থিতি সামাল দেন।
মির্জা ফখরুল তার বক্তব্যের শুরুতে এ রকম ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, আমাদের সাংবাদিক ভাইদের সঙ্গে কয়েকজন ব্যক্তির একটা অনাকাঙ্ক্ষিত ও অনভিপ্রেত যে ঘটনা ঘটেছে, সে জন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি। আমি আপনাদের কাছে প্রশ্ন করতে চাই, এই রূপনগর, পল্লবী থানার নেতা-কর্মীদের আপনারা কি সত্যিকারই দলকে ভালোবাসেন? মনে হয় না। তা না হলে আজ এই ঘটনা ঘটতো না।ফখরুল বলেন, আপনারা অতিথিদের সম্মান করতে জানেন না। আমি অত্যন্ত দুঃখিত ও শোকাহত। আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সাহেব বক্তৃতা করছেন। এই সময়ে আপনারা এসব ঘটনা ঘটিয়েছেন।

এ সময় কিছু নেতাকর্মী উচ্ছৃঙ্খলতা ও হইচই শুরু করলে আবারও ক্ষোভ প্রকাশ করে ও ধমক দিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, এরা কারা? চুপ, থামো। পরে নেতাদের প্রতিও তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন কেন সাংবাদিকদের জন্য জায়গা নির্দিষ্ট করা হলো না।

তিনি বলেন আমি অনুরোধ করবো, দয়া করে শৃঙ্খলার সঙ্গে এখানে থাকেন। আমি ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, বিএনপির নেতাদের অনুরোধ করবো, আপনারা দয়া করে শৃঙ্খলাবদ্ধ হন। শৃঙ্খলা ছাড়া কোনও যুদ্ধে জয়লাভ করা যায় না। তিনি আরও বলেন আমি আবারো আমার সাংবাদিক ভাইদের কাছে ব্যক্তিগতভাবে ও দলের পক্ষ থেকে ক্ষমা চাচ্ছি।

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

সাংবাদিকদের ওপর হামলা করলেন বি এন পি নেতাকরর্মীরা

আপডেট সময় : ১১:০৯:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ মার্চ ২০২৩

শুক্রবার (৩১মার্চ)পল্লবী ও রূপনগর থানার বিএনপির উদ্যোগে রাজধানীর মিরপুর ২ নম্বর ওয়ার্ড কমিউনিটি সেন্টারে এক ইফতার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।দায়িত্বরত কয়েকজন সাংবাদিকদের উপর এ সময় স্থানীয় নেতাকর্মীরা হামলা চালায়। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঘটনার পর সাংবাদিকদের কাছে দুঃখপ্রকাশ করেন এবংনেতাকর্মীদের ওপর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখান তিনি। ওই ইফতার অনুষ্ঠানে স্কাইপে লন্ডন থেকে বক্তব্য রাখেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

পল্লবী থানা আয়োজিত ইফতার অনুষ্ঠানে ব্যাপক নেতা-কর্মীর সমাগমের মধ্যেও সাংবাদিকদের দাঁড়ানোর জায়গা ছিল। দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় কয়েকজন নেতাকর্মী তাদের সঙ্গে বাড়বিতণ্ডায় জড়ায়। পরক্ষণে মারমুখী হয়ে হামলা চালায়। এতে কয়েকজন সাংবাদিক আহত হন। এ সময় মঞ্চ থেকে কেন্দ্রীয় নেতারা এসে পরিস্থিতি সামাল দেন।
মির্জা ফখরুল তার বক্তব্যের শুরুতে এ রকম ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, আমাদের সাংবাদিক ভাইদের সঙ্গে কয়েকজন ব্যক্তির একটা অনাকাঙ্ক্ষিত ও অনভিপ্রেত যে ঘটনা ঘটেছে, সে জন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি। আমি আপনাদের কাছে প্রশ্ন করতে চাই, এই রূপনগর, পল্লবী থানার নেতা-কর্মীদের আপনারা কি সত্যিকারই দলকে ভালোবাসেন? মনে হয় না। তা না হলে আজ এই ঘটনা ঘটতো না।ফখরুল বলেন, আপনারা অতিথিদের সম্মান করতে জানেন না। আমি অত্যন্ত দুঃখিত ও শোকাহত। আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সাহেব বক্তৃতা করছেন। এই সময়ে আপনারা এসব ঘটনা ঘটিয়েছেন।

এ সময় কিছু নেতাকর্মী উচ্ছৃঙ্খলতা ও হইচই শুরু করলে আবারও ক্ষোভ প্রকাশ করে ও ধমক দিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, এরা কারা? চুপ, থামো। পরে নেতাদের প্রতিও তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন কেন সাংবাদিকদের জন্য জায়গা নির্দিষ্ট করা হলো না।

তিনি বলেন আমি অনুরোধ করবো, দয়া করে শৃঙ্খলার সঙ্গে এখানে থাকেন। আমি ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, বিএনপির নেতাদের অনুরোধ করবো, আপনারা দয়া করে শৃঙ্খলাবদ্ধ হন। শৃঙ্খলা ছাড়া কোনও যুদ্ধে জয়লাভ করা যায় না। তিনি আরও বলেন আমি আবারো আমার সাংবাদিক ভাইদের কাছে ব্যক্তিগতভাবে ও দলের পক্ষ থেকে ক্ষমা চাচ্ছি।