খুলনায় বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে পুলিশের মামলা

খুলনায় পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে খুলনায় বিএনপির ৫৯ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এ মামলায় আটজনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।
শনিবার (১ এপ্রিল) রাতে এই মামলাটি করা হয়েছে । খুলনা সদর থানার এসআই অজিত কুমার দাস মামলাটি করেন।
বিএনপির কেন্দ্রীয় তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, খুলনা জেলা আহ্বায়ক আমীর এজাজ খান, মহানগর সদস্য শফিকুল আলম তুহিন, জেলা সদস্য সচিব মনিরুল হাসান বাপ্পি, কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা নাজমুল হুদা চৌধুরী সাগরসহ ৫৯ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত পরিচয়ে আরও ৮০০ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শনিবার বিকেলে মহানগরীর কেডিঘোষ রোডের বিএনপি অফিসের সামনে নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া, ইটপাটকেল, টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। পুলিশের গাড়ির ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ায় খুলনা সদর থানায় মামলাটি হয়েছে। এ মামলা আটজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

অন্যদিকে এই ঘটনায় পুলিশের ছোড়া টিয়ারশেল ও রাবার বুলেটে ঘাটভোগ ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ কবির শেখ, রূপসা উপজেলা যুবদলের সদস্য সচিব রুবেল মীর, বটিয়াঘাটা উপজেলা যুবদলের সদস্য সচিব বাহাদুর মুন্সী, ডুমুরিয়া উপজেলা যুবদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক শাহিন মোল্লা, ডুমুরিয়া উপজেলা যুবদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক তামিম মোল্লা, খুলনা জেলা যুবদলের সাজু হাওলাদার, খুলনা জেলা ছাত্রদলের মনিরুজ্জামান নয়ন হাওলাদার, ইয়াসিন, ফিরোজ মাহমুদ, ইসমাইল হোসেন, ইবাদুল হক রুবায়েত, ইস্তিয়াক আহমেদ ইস্তিসহ ১৫-২০ নেতাকর্মী আহত হন বলে দাবি করেন বিএনপি নেতারা।

ট্যাগস :

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

খুলনায় বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে পুলিশের মামলা

আপডেট সময় : ১১:৫৫:০১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২ এপ্রিল ২০২৩

খুলনায় পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে খুলনায় বিএনপির ৫৯ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এ মামলায় আটজনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।
শনিবার (১ এপ্রিল) রাতে এই মামলাটি করা হয়েছে । খুলনা সদর থানার এসআই অজিত কুমার দাস মামলাটি করেন।
বিএনপির কেন্দ্রীয় তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, খুলনা জেলা আহ্বায়ক আমীর এজাজ খান, মহানগর সদস্য শফিকুল আলম তুহিন, জেলা সদস্য সচিব মনিরুল হাসান বাপ্পি, কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা নাজমুল হুদা চৌধুরী সাগরসহ ৫৯ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত পরিচয়ে আরও ৮০০ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শনিবার বিকেলে মহানগরীর কেডিঘোষ রোডের বিএনপি অফিসের সামনে নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া, ইটপাটকেল, টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। পুলিশের গাড়ির ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ায় খুলনা সদর থানায় মামলাটি হয়েছে। এ মামলা আটজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

অন্যদিকে এই ঘটনায় পুলিশের ছোড়া টিয়ারশেল ও রাবার বুলেটে ঘাটভোগ ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ কবির শেখ, রূপসা উপজেলা যুবদলের সদস্য সচিব রুবেল মীর, বটিয়াঘাটা উপজেলা যুবদলের সদস্য সচিব বাহাদুর মুন্সী, ডুমুরিয়া উপজেলা যুবদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক শাহিন মোল্লা, ডুমুরিয়া উপজেলা যুবদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক তামিম মোল্লা, খুলনা জেলা যুবদলের সাজু হাওলাদার, খুলনা জেলা ছাত্রদলের মনিরুজ্জামান নয়ন হাওলাদার, ইয়াসিন, ফিরোজ মাহমুদ, ইসমাইল হোসেন, ইবাদুল হক রুবায়েত, ইস্তিয়াক আহমেদ ইস্তিসহ ১৫-২০ নেতাকর্মী আহত হন বলে দাবি করেন বিএনপি নেতারা।