অভিনব প্রতারণা, টার্গেট দূর-দূরান্তের পথচারীরা

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:০৫:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ এপ্রিল ২০২৩
  • ১৬৭১ বার পড়া হয়েছে

খুলনা নগরীর বিভিন্ন ব্যস্ত সড়কে অভিনব পন্থায় প্রতারণার জাল বুনছে একদল প্রতারকচক্র। দূর-দূরান্ত থেকে আসা পথচারীদের টার্গেট করে ফাঁদে ফেলে হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে অর্থ।স্থানীয়রা জানান, দূর-দূরান্ত থেকে আসা পথচারীদের টার্গেট করে তাদের সামনে গিয়ে বিভিন্ন প্রতারণার জাল বুনছেন প্রতারকরা।

টার্গেট করা পথচরীর সামনে গিয়ে প্রথমে নিজেদের মধ্যে মারামারি বা বিচার সালিশের আয়োজন করা হয়। এরপর যখনই বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চান ওই পথচারী তখন তাকে বিভিন্নভাবে প্রলোভন দেখানো হয়। এ সময়ে লোভের বসে অনেকেই নিজের কাছে থাকা সর্বস্ব হারিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হন।

সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতি কুদরত-ই-খুদা বলেন, প্রতিটি অপরাধ সংঘটিত হওয়ার পেছনে একদল প্রভাবশালী চক্র জড়িত থাকে। তারা সব সময় ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকেন। খুলনায় বিভিন্ন কলকারখানা বন্ধ থাকায় কর্মসংস্থানের সংকট দেখা দিয়েছে। ফলে বাড়ছে অপরাধপ্রবণতা। বিভিন্ন পন্থায় সাধারণ মানুষকে হয়রানি ও প্রতারণার ফাঁদে ফেলে হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে অর্থ। এসব প্রতারণা এড়াতে প্রশাসনের নজরদারি ও সাধারণ মানুষের সচেতনতা জরুরি।

এ বিষয়ে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম বলেন, আমাদের কাছে যখনই এ ধরনের অভিযোগ আসে আমরা দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করি। পুলিশ এ ধরনের প্রতারকচক্র ধরতে কাজ করছে। প্রতারণার অভিযোগে নগরীর সদর থানায় এ চক্রটি আগেও গ্রেফতার হয়েছিল।

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

অভিনব প্রতারণা, টার্গেট দূর-দূরান্তের পথচারীরা

আপডেট সময় : ১২:০৫:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ এপ্রিল ২০২৩

খুলনা নগরীর বিভিন্ন ব্যস্ত সড়কে অভিনব পন্থায় প্রতারণার জাল বুনছে একদল প্রতারকচক্র। দূর-দূরান্ত থেকে আসা পথচারীদের টার্গেট করে ফাঁদে ফেলে হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে অর্থ।স্থানীয়রা জানান, দূর-দূরান্ত থেকে আসা পথচারীদের টার্গেট করে তাদের সামনে গিয়ে বিভিন্ন প্রতারণার জাল বুনছেন প্রতারকরা।

টার্গেট করা পথচরীর সামনে গিয়ে প্রথমে নিজেদের মধ্যে মারামারি বা বিচার সালিশের আয়োজন করা হয়। এরপর যখনই বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চান ওই পথচারী তখন তাকে বিভিন্নভাবে প্রলোভন দেখানো হয়। এ সময়ে লোভের বসে অনেকেই নিজের কাছে থাকা সর্বস্ব হারিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হন।

সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতি কুদরত-ই-খুদা বলেন, প্রতিটি অপরাধ সংঘটিত হওয়ার পেছনে একদল প্রভাবশালী চক্র জড়িত থাকে। তারা সব সময় ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকেন। খুলনায় বিভিন্ন কলকারখানা বন্ধ থাকায় কর্মসংস্থানের সংকট দেখা দিয়েছে। ফলে বাড়ছে অপরাধপ্রবণতা। বিভিন্ন পন্থায় সাধারণ মানুষকে হয়রানি ও প্রতারণার ফাঁদে ফেলে হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে অর্থ। এসব প্রতারণা এড়াতে প্রশাসনের নজরদারি ও সাধারণ মানুষের সচেতনতা জরুরি।

এ বিষয়ে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম বলেন, আমাদের কাছে যখনই এ ধরনের অভিযোগ আসে আমরা দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করি। পুলিশ এ ধরনের প্রতারকচক্র ধরতে কাজ করছে। প্রতারণার অভিযোগে নগরীর সদর থানায় এ চক্রটি আগেও গ্রেফতার হয়েছিল।