বাংলাদেশ – ভারত রুপিতে বাণিজ্য শুরু

  • বানিজ্য ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৮:০৫:২৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুলাই ২০২৩
  • ১৬৬৩ বার পড়া হয়েছে

অবশেষে আজ মঙ্গলবার (১১জুলাই) থেকে ভারতীয় রুপিতে (আইএনআর) বাণিজ্য লেনদেন শুরু করেছে বাংলাদেশ।

এই পদক্ষেপকে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে মার্কিন ডলারের ওপর নির্ভরতা কমানোর উদ্যোগ হিসেবে ভাবা হচ্ছে।

এ উপলক্ষে ভারতীয় হাইকমিশন ও বাংলাদেশ ব্যাংক ঢাকার একটি হোটেলে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আবদুর রউফ তালুকদার ও ভারতীয় হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মা উপস্থিত ছিলেন।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর বলেন, ‘ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে আলোচনা (এই উদ্যোগ নিয়ে) দীর্ঘদিন ধরেই চলছে; ব্যবসায়ীরা দীর্ঘদিন ধরে এই দাবি করে আসছিলেন… এখন তা বাস্তবে পরিণত হয়েছে।’

এখন ডলারের পাশাপাশি রুপিতেও ব্যবসা হবে বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, ভারত বাংলাদেশের অন্যতম বড় বাণিজ্যিক অংশীদার। বাংলাদেশ ভারতের কাছ থেকে ১৪  বিলিয়ন ডলারের পণ্য আমদানি করে এবং ২ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রপ্তানি করে।

টাকা-রুপির ডুয়েল কারেন্সি কার্ড চালু হলে ভারতের সঙ্গে বাণিজ্যের সময় লেনদেনের খরচ কমে যাবে।

ভারতীয় হাইকমিশনার আশা প্রকাশ করেছেন যে এই পদ্ধতির মাধ্যমে উভয় দেশই উপকৃত হবে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আফজাল করিম; ইস্টার্ন ব্যাংকের এমডি আলী রেজা ইফতেখার এবং  অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব শেখ মো. সলিমুল্লাহ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিডা চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মিয়া; বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ; এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন; ভারত-বাংলাদেশ চেম্বারের সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমেদ এবং বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান।

সোনালী ব্যাঙ্ক ও ইস্টার্ন ব্যাংক অব বাংলাদেশ এবং স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া ও আইসিআইসিআই ব্যাংক অব ইন্ডিয়া হল দুই দেশের মধ্যে রুপিতে লেনদেনের জন্য মনোনীত ব্যাংক।

মতিঝিলে ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মো. মেসবাউল হক উদ্বোধনী দিনে এলসি খোলার কথা জানান।

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বাংলাদেশ – ভারত রুপিতে বাণিজ্য শুরু

আপডেট সময় : ০৮:০৫:২৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুলাই ২০২৩

অবশেষে আজ মঙ্গলবার (১১জুলাই) থেকে ভারতীয় রুপিতে (আইএনআর) বাণিজ্য লেনদেন শুরু করেছে বাংলাদেশ।

এই পদক্ষেপকে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে মার্কিন ডলারের ওপর নির্ভরতা কমানোর উদ্যোগ হিসেবে ভাবা হচ্ছে।

এ উপলক্ষে ভারতীয় হাইকমিশন ও বাংলাদেশ ব্যাংক ঢাকার একটি হোটেলে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আবদুর রউফ তালুকদার ও ভারতীয় হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মা উপস্থিত ছিলেন।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর বলেন, ‘ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে আলোচনা (এই উদ্যোগ নিয়ে) দীর্ঘদিন ধরেই চলছে; ব্যবসায়ীরা দীর্ঘদিন ধরে এই দাবি করে আসছিলেন… এখন তা বাস্তবে পরিণত হয়েছে।’

এখন ডলারের পাশাপাশি রুপিতেও ব্যবসা হবে বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, ভারত বাংলাদেশের অন্যতম বড় বাণিজ্যিক অংশীদার। বাংলাদেশ ভারতের কাছ থেকে ১৪  বিলিয়ন ডলারের পণ্য আমদানি করে এবং ২ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রপ্তানি করে।

টাকা-রুপির ডুয়েল কারেন্সি কার্ড চালু হলে ভারতের সঙ্গে বাণিজ্যের সময় লেনদেনের খরচ কমে যাবে।

ভারতীয় হাইকমিশনার আশা প্রকাশ করেছেন যে এই পদ্ধতির মাধ্যমে উভয় দেশই উপকৃত হবে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আফজাল করিম; ইস্টার্ন ব্যাংকের এমডি আলী রেজা ইফতেখার এবং  অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব শেখ মো. সলিমুল্লাহ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিডা চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মিয়া; বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ; এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন; ভারত-বাংলাদেশ চেম্বারের সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমেদ এবং বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান।

সোনালী ব্যাঙ্ক ও ইস্টার্ন ব্যাংক অব বাংলাদেশ এবং স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া ও আইসিআইসিআই ব্যাংক অব ইন্ডিয়া হল দুই দেশের মধ্যে রুপিতে লেনদেনের জন্য মনোনীত ব্যাংক।

মতিঝিলে ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মো. মেসবাউল হক উদ্বোধনী দিনে এলসি খোলার কথা জানান।